শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার প্রয়োজনে সর্বোচ্চটা করব : যবিপ্রবি ভিসি

অনলাইন ডেস্ক ০৫:০০, ১৯ মে ২০১৯

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেছেন, আমার ছাত্ররা আমার সন্তানের মতো। তাই প্রতিটি শিক্ষার্থীকে নিরাপদ রাখার জন্য যা করার আমি করব। প্রয়োজনে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়ে যাব। আজ রবিবার যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য হিসেবে তার ২ বছর পূর্তিতে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। 

বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো উল্লেখ করেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার যাত্রা মোটেই সুখকর ছিল না। যশোরের শহরভিত্তিক রাজনীতি আমার আগমনকে স্বাগত জানায়নি। এমনকি তাদের সঙ্গে হাত মেলানোর জন্য আমাকে হুমকিও দেওয়া হয়েছিল। সেটা করলে বিশ্ববিদ্যালয় আর বিশ্ববিদ্যালয় থাকত না। অবৈধ সুবিধা নেওয়ার জন্য তারা এমন লোকদের ব্যবহার করার চেষ্টা করেছে যাদের এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ন্যূনতম কোনো সম্পর্ক নেই। এমনকি তাদের অধিকাংশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশের যোগ্যতা নেই। দায়িত্ব গ্রহণের প্রথম দিন থেকেই তারা বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করেছে। শিক্ষার্থী ভর্তি, শ্রেণিকক্ষে পাঠদান থেকে শুরু করে নিয়োগ প্রক্রিয়া পর্যন্ত প্রতিটি পদক্ষেপে তারা হস্তক্ষেপের চেষ্টা করেছে। তারা বিভিন্ন সময় আমার অফিসে হামলা, আমার পিএস এবং কর্মচারীকে জোরপূর্বক উঠিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছে। 

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ব র‌্যাংকিং এ সম্মানজনক অবস্থানে নেই। গ্রহণযোগ্য র‌্যাংকিং-এ যাওয়া একটি দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া। এ বিশ্ববিদ্যালয়কে সম্মানজনক র‌্যাংকিং-এ উত্তরণ ঘটাতে কিছু সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নিয়েছি। 

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী সামনে রেখে আগামী ১০ বছরের জন্য দেড় হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে বলেও জানান যবিপ্রবি ভিসি।

 

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ