হরিরামপুরে বাল্যবিবাহের চেষ্টার অভিযোগে কনের পিতার কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক ০৪:০০, ১২ জুলাই ২০১৯

ভ্রাম্যমাণ আদালতের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেয়েছে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার ঝিটকা গালর্স স্কুলের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী। এ ছাড়া বাল্যবিবাহের দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে গত বুধবার ওই ছাত্রীর পিতা মোসলেম উদ্দিন মাতবরকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইলিয়াছ মেহদী। মোসলেম উদ্দিন মাতবরের বাড়ি উপজেলার চালা ইউনিয়নের পূর্ব সাকুচিয়া গ্রামে।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চালা ইউনিয়নের পূর্ব সাকুচিয়া গ্রামের মোসলেম উদ্দিন মাতবরের ৮ম শ্রেণিতে পড়া মেয়ের সাথে একই ইউনিয়নের শাটিনওদা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক নামে এক যুবকের বিয়ে ঠিক হয়। বৃহস্পতিবার তাদের বিয়ের দিন ধার্য করা হয়েছিল। বিয়ের আগের দিন বুধবার সন্ধ্যায় মেয়েটির গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানের খবরে মেয়ের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিয়ে ভেঙে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইলিয়াছ মেহদী।

অপ্রাপ্তবয়স্ক স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে পিতা মোসলেম উদ্দিন মাতবরকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ