গফরগাঁওয়ে বধ্যভূমিসহ পৌর শহরের নিচু এলাকা প্লাবিত

অনলাইন ডেস্ক ০২:০০, ২৭ জুলাই ২০১৯

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় লঞ্চঘাটা বধ্যভূমিসহ পৌর শহরের বিস্তীর্ণ নিচু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে প্রায় ৫-৬ শতাধিক শ্রমজীবী পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। পরিবারগুলো স্থানীয় ইসলামিয়া সরকারি হাইস্কুল ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় গ্রহণ করেছেন।

জানা যায়, পৌর শহরের ব্রহ্মপুত্র তীরবর্তী দুই, চার ও আট নম্বর ওয়ার্ডের চর শিলাসী এলাকায় সহস্রাধিক শ্রমজীবী পরিবার বসবাস করেন। ব্রহ্মপুত্র নদের বন্যার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই এলাকাগুলো প্লাবিত হয়ে ৫-৬ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। অনেকের বাসায় পানি ঢুকে পড়েছে। তলিয়ে গেছে লঞ্চঘাটা বধ্যভূমি। যাতায়াতের কোনো রাস্তা না থাকায় অসহায় পরিবারগুলো স্থানীয় ইসলামিয়া সরকারি হাইস্কুল শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন।

অন্যদিকে উপজেলার চরআলগী ইউনিয়নের বালুয়া কান্দা, নয়াপাড়া, কুরতলী পাড়া, বোরাখালীর চর, কালী বাড়িচর, মাইজপাড়া, চরমছলন্দ গ্রামের পশ্চিম অংশে বন্যার পানিতে খাল-বিল, মৌসুমী শাকসবজির মাঠ তলিয়ে গেছে। গত বুধবার রাতে বালুয়া কান্দা গ্রামের রাজমিস্ত্রী লিটন মিয়ার বসত বাড়ির অর্ধেক অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

চরআলগী নয়াপাড়া গ্রামের লিটন ভেন্ডার বলেন, চরআলগীতে খাল-বিল-নালাসহ প্রায় সব ফসলের জমি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। বসত ঘরের উঠান পর্যন্ত পানি উঠে গেছে। পানি আরো বৃদ্ধি পেলে চরাঞ্চলের মানুষের জন্য চরম বিপর্যয় ডেকে আনবে।

পৌর মেয়র এসএম ইকবাল হোসেন সুমন বলেন, আমাদের সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল মহোদয়ের নির্দেশে ইসলামিয়া সরকারি হাইস্কুল আশ্রয় শিবিরে আশ্রিত প্রতিটি পরিবারকে ২০ কেজি করে চাউলসহ বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী দেওয়া হয়েছে। এ সহায়তা শেষ পর্যন্ত চলবে।

শুক্রবার বিকালে পৌর শহরের ৪নং ওয়ার্ডের লঞ্চঘাটা বধ্যভূমি এলাকা থেকে ছবিটি তোলা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ