ঢাকা স্ট্যান্ডার্ড বেকারিকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক ১০:০০, ৯ অক্টোবর ২০১৯

নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় বেকারির খাদ্যপণ্যে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর রং-ফ্লেভার ও স্যাকারিনের ব্যবহার এবং প্রস্তুতকৃত পণ্যের প্যাকেটে অনুমোদনহীনভাবে বিএসটিআইয়ের লোগো ব্যবহার করাসহ বিভিন্ন অপরাধে ‘ঢাকা স্ট্যান্ডার্ড বেকারি’ নামে খাদ্যপণ্য প্রস্তুতকারী একটি প্রতিষ্ঠানকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আজ বুধবার জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালিত ভেজালবিরোধী অভিযানে উপজেলার রামপুর বাজারের ওই প্রতিষ্ঠানটিকে এ জরিমানা করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নেত্রকোনা জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. শাহ্ আলমের নেতৃত্বে বুধবার বিকেলে উপজেলার রামপুর বাজারের ‘ঢাকা স্ট্যান্ডার্ড বেকারি’ নামে খাদ্যপণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটিতে ভেজালবিরোধী অভিযান চালানো হয়। এ সময় অভিযান পরিচালনাকারী কর্মকর্তাদের কাছে ওই বেকারির খাদ্যপণ্যে মানবদহের জন্য ক্ষতিকর রং-ফ্লেভার ও স্যাকারিনের ব্যবহার ছাড়াও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যের মজুদ এবং পণ্যের প্যাকেটে অনুমোদনহীনভাবে বিএসটিআইয়ের লোগো ব্যবহারের অভিযোগ ধরা পড়ে। তাছাড়া অভিযানে নেতৃত্বদানকারী কর্তৃপক্ষের কাছে বেকারি পরিচালনাকারীরাও নিজেদের দোষ স্বীকার করেন। এরইপ্রেক্ষিতে বিভিন্ন অপরাধের দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ওই খাদ্যপণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটিকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তাছাড়া মেয়াদোত্তীর্ণ এবং মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী প্রকাশ্যে ধ্বংস করা হয়। পাশাপাশি উপস্থিত জনসাধারারণের মাঝে ভোক্তা অধিকার সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এ-সংক্রান্ত লিফলেটও বিতরণ করা হয়।

এ সময় জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর আবদুল হক, জেলা বাজার কর্মকর্তা আজমল হোসাইন ও উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর আবদুল গফুরসহ জেলা পুলিশের একটি দল অভিযানে সহায়তা করে।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. শাহ আলম বুধবার সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠকে জানান, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর আওতায় অভিযুক্ত খাদ্যপণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটিকে এ জরিমানা করা হয়। জনস্বার্থে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ