শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্রেকিং নিউজ
◈ রাঙ্গাবালীতে ভিটেবাড়ি ও কৃষি জমি রক্ষার দাবি পাঁচ পরিবারের ◈ রাঙ্গাবালীতে পল্লী বিদ্যুতের কাজে বাগড়া, সিন্ডিকেটের দাপট ◈ রাঙ্গাবালীতে পরকীয়ার জেরে মনির হত্যাকাণ্ড হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসি দাবি ◈ রাঙ্গাবালীতে ৩শ’ ফুট লম্বা কাঠের সেতু নির্মাণ ◈ রাঙ্গাবালীতে বঙ্গবন্ধুর ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত ◈ ‘শিগগরই ঘরে ঘরে বিদ্যুতের আলো জ্বলবে’-এমপি মহিব ◈ রাঙ্গাবালীতে এক মাদক ব্যবসায়ী আটক ◈ রাঙ্গাবালীতে করোনাকালীন ক্ষতিগ্রস্থ পল্লী উদ্যোক্তাদের ঋণ প্রদান করছেন বিআরডিবি ◈ গলাচিপায় ইউনিয়ন পর্যায়ে গণ টিকাদান কার্যক্রম শুরু ◈ গলাচিপায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত

তেঁতুলিয়ায় নির্মাণাধীন ঘর তৈরিতে নানা অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত : ০৩:৩৭ অপরাহ্ণ, ৩ জানুয়ারি ২০২১ রবিবার 138 বার পঠিত

মোঃ রাশেদুল ইসলাম পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

পঞ্চগড় তেঁতুলিয়া উপজেলার শালবাহান দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক কাবুল এর বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। স্কুলের জমির উপর নির্মাণাধীন দোকান ঘরের বিভিন্ন অনিয়ম ও বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ ব্যবহার সহ বেশকিছু অনিয়ম এর কথা বলেছেন স্থানীয় দোকান ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ।শনিবার (২-জানুয়ারি) সরজমিনে স্থানীয়দের সাথে কথা বলতে গেলে স্কুল মার্কেটের দোকান ব্যবসায়ী মোঃ সোহরাব আলী বলেন, আমি ৪০হাজার টাকা স্কুল কর্তৃপক্ষকে জামানত দিয়ে এবং প্রতি মাসে ৮০০ টাকা ভাড়া হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে এখানে ব্যবসা করে আসতেছি। এমতাবস্থায় প্রায় তিন মাস আগে পূর্বের দোকান সব ভেঙ্গে ফেলে স্কুলের নতুন ভাবে দোকান নির্মাণ এর কাজ শুরু হয়। আমাকে বলা হয়েছিল এক মাসের মধ্যে নতুন দোকান নির্মাণ কাজ শেষ করে আমাকে আমার দোকান ঘর বুঝিয়ে দিবে। কিন্তু প্রায় তিন মাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত আমি আমার নির্ধারিত দোকান বুঝিয়ে পাইনি। পাশাপাশি নতুন ঘরের জন্য এক লক্ষ আশি হাজার টাকা ও পূর্বের চল্লিশ হাজার টাকা সহ মোট দুই লক্ষ বিশ হাজার টাকা জামানত স্বরূপ স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে দিয়েছি । পাশাপাশি উদ্বৃত্ত কিছু টাকা প্রধান শিক্ষককে দিয়েছি। কিন্তু তিনি এখন পর্যন্ত আমাকে দোকান ভাড়ার ও জামানতের চুক্তিপত্র দেয়নি পাশাপাশি রাস্তার পাশে দোকান ঘর নিতে গেলে ঐ ঘরের সাথে লাগানো পেছনের আরেকটি ঘর বাধ্যতামূলক ভাবে নিতে হবে । স্থানীয় আরেক দোকানদার মোঃ শরীফ বলেন সাত বছর থেকে স্কুল মার্কেটের দোকান ভাড়া নিয়ে ব্যবসা করে আসতেছি । নতুন দোকান ঘর নির্মাণের জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষ সব দোকান ঘর ভেঙ্গে ফেলে এক মাসের মধ্যে আমাদের ঘর বুঝিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত দেয়নি পাশাপাশি পূর্বের জামানতে ৪০ হাজার টাকাসহ মোট ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে দিয়েছি সেই টাকার এখন পর্যন্ত কোন চুক্তিপত্র করে আমাকে দেয়নি ।মোঃ হোসেন বলেন, আমি ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে দিয়েছি সামনের একটা ঘর নিতে গেলে তার সাথে পিছনের ঘরটি ভাড়া নিতে হবে। কিন্তু এতে আমার কোন আপত্তি নাই কারন দুইটি ঘরেই আমার প্রয়োজন ।তবে স্থানীয় আরো অনেক দোকানদার জানান আমরা টাকা দিয়েছি কিন্তু এখন পর্যন্ত চুক্তিপত্র বা ঘর আমাদের বুঝিয়ে দেওয়া হয়নি। আবার ঘর পাব কিনা তা নিয়ে অনেক দ্বিধা সংকোচ এর মধ্যে আছি। এছাড়াও স্থানীয় বাসিন্দা মোহাম্মদ শফিউল আলম বুলবুল,মালেক হোসেন সহ বেশ কয়েকজন দাবি করেন প্রধান শিক্ষক স্কুলের মার্কেট নির্মাণ সামগ্রী নিজ বাড়িতে ব্যবহার করে এবং নিম্নমানের ইট সিমেন্ট ব্যবহার করে দোকানঘর গুলো নির্মাণের কাজ করছে। আমরা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তিনি কারো কথা শুনেননি । স্থানীয় মিস্ত্রি দিয়ে সাঁটার তৈরির কাজ না করিয়ে ঢাকা থেকে বেশি মূল্যে সাঁটার তৈরি করে এনেছে। এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক কাবুল বলেন, ২৪ শতক জমির মধ্যে মোঃ শফিউল আলম বুলবুল এ দাদা মোঃ জহির উদ্দিন এর কাছ থেকে হাজার ১৯৯৭ সালে ১২ শতক জমি স্কুল ক্রয় করে । পরবর্তীতে বুলবুলের পিতা আফাজ উদ্দিন আর্মির কাছে ৬ শতক ও আশরাফুন্নেছা এর কাছে ৬ শতক জমি বিক্রি করে কিন্তু পরবর্তীতে বুলবুল তার পিতা আফাজ উদ্দিন এর কাছ থেকে সাড়ে পাঁচ শতক জমি ক্রয় করে এবং এরমধ্যে ২ শতক জমি কাদেরের কাছে বুলবুল বিক্রি করে ফলে একটু ভেজাল সৃষ্টি হয় । তাছাড়া দোকান ঘরের উপর স্কুলের কয়েকটি গাছ থাকার কারণে কাজে একটু ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যে আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে দরখাস্ত দিয়েছি । সেখান থেকে টেন্ডার হলে আটটি গাছ কাটা হবে। গাছগুলো কাটা হলে দ্রুত ঘর নির্মাণের কাজ শেষ করে যারা জামানত দিয়েছে বা মাসিক চুক্তিতে দোকান ঘর ভাড়া নেওয়ার কথা তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দর্পণ বাংলা'কে জানাতে ই-মেইল করুন। আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দর্পণ বাংলা'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দর্পণ বাংলা | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি | Developed by UNIK BD